ছোট্ট থেকে সিনেমায় অভিনয় করা সত্ত্বেও কেন কাজ দিল না টলিউড? এত দিনে মুখ খুললেন মাস্টার রিন্টুর!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- বিভিন্ন ধারাবাহিক থেকে শুরু করে চলচ্চিত্র সব জায়গাতেই কিন্তু সময়ের সময়ে অনেক শিশু শিল্পীদের দেখা যায়। তবে কয়েকবার ক্যামেরার সামনে মুখ দেখিয়েই কিন্তু ধীরে ধীরে হারিয়ে যায় তারা। যদিও এমন অনেক শিল্পীরা রয়েছেন যাদের হয়তো কম-বেশি আজকাল ছোটখাটো চরিত্রে পরবর্তীতে দেখা যায়। কিন্তু সেই সংখ্যাটা খুবই নগণ্য। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনেও আমরা আপনাদেরকে জানাবো এমনই এক শিশু শিল্পীর কথা।

জনপ্রিয় এই শিশুশিল্পী হলেন মাস্টার রিন্টু দে (Master Rintu Dey)। তাঁর প্রকৃত নাম সজল দে (Sajal Dey) হলেও ডাকনাম রিন্টু নামেই তিনি পরিচিত ছিলেন টলিউডে। টলিউড ইন্ডাস্ট্রির প্রায় একশোর বেশি সিনেমায় দেখা গিয়েছে মাস্টার রিন্টুকে। প্রথমবার পথ ও প্রাসাদ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন রিন্টু। তারপর একের পর এক সুপারহিট চলচ্চিত্রে তাকে কাজ করা হতে থাকে। কিন্তু আপনারা জানেন কি বর্তমানে কোথায় রয়েছেন তিনি এবং তার পেশা কি?

সত্যি বলতে গেলে বর্তমান সময়ে মাস্টার রিন্টু কে আর হয়তো কারোরই মনে নেই। ইন্ডাস্ট্রিতেও তিনি ব্রাত্য হয়ে পড়েছেন।  সন্ধ্যা রায় থেকে শুরু করে বহু জনপ্রিয় শিল্পীদের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করে নিয়েছিলেন রিন্টু। প্রসেনজিৎ থেকে শুরু করে অনেক তারকাদের ই শৈশব কালের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। অভিনয় করেছেন ‘গুরুদক্ষিণা’, ‘মঙ্গলদীপ’ সহ একাধিক ফিল্মে। কিন্তু বড় হওয়ার পর রাজা চন্দ, রবি কিনাগীদের ফিল্মে রিন্টুকে দেখা গেছে নায়কের বন্ধু অথবা নায়িকার ভাই হিসাবে।

তবে এরপর ধীরে ধীরে আচমকায় কিন্তু পর্দা থেকে হারিয়ে যান মাস্টার রিন্টু। বেশ কয়েকবার নায়কের বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করার জন্য ডাক পেয়েছিলেন তিনি। তবে অনেকবারই তার কাছ থেকে এই অফার ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে। রিন্টুর সমসাময়িক শিশুশিল্পী সোহম চক্রবর্তীকে কিন্তু পরবর্তীকালে ইন্ডাস্ট্রিতে দেখা গিয়েছে। সেই জায়গায় একেবারেই ব্রাত্য হয়ে রয়েছেন মাস্টার রিন্টু। লকডাউনের সময় থেকে এই বিশেষ করে তার জীবনের দুর্দশা নেমে আসে। 

হাতে কাজ আর অর্থ কোনটাই ছিল না তার। দীর্ঘ সময় ধরে সংসারে অর্থাভাব আর নানান ধরনের সমস্যায় জর্জরিত ছিলেন একসময়কার এই জনপ্রিয় শিশু শিল্পী। এমনকি না খেয়ে থাকলেও খোঁজ নেওয়ার কেউ ছিল না এমনটাই জানিয়েছেন রিন্টু। তবে সমকালীন শিশু শিল্পী তথা পরবর্তীকালের বন্ধু সোহমের সাথে কিন্তু তার বরাবর থেকেই যোগাযোগ রয়েছে। এমনকি সোহমের নির্মিত প্রজেক্টের অংশ হয়েছিলেন রিন্টু। 

তবে তার পরেও ভাগ্যের চাকা খুব একটা ঘুরতে দেখা যায়নি তার। ইন্ডাস্ট্রিতে আর আগের মতন নিজের জায়গা তৈরি করতে পারেননি তিনি। কালের নিয়মেই অন্যান্য তারকাদের মতন তিনিও হারিয়ে গিয়েছেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না। বিনোদন জগত সম্পর্কিত সমস্ত ধরনের তাজা আপডেট পেতে চাইলে আমাদের অন্যান্য প্রতিবেদন গুলির উপর নজর রাখতে থাকুন।

Back to top button