বাইকের রেসিং দেখেছেন! কিন্তু বিমানের রেসিং দেখেছেন কখনও! দেখলে হবেন অবাক, রইলো ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন:- উন্নত প্রযুক্তি ব্যবস্থার ফলে বর্তমানে একাধিক যানবাহন তৈরি হয়েছে । আগেকার দিনে মানুষেরা ঘোড়ার গাড়ি কিংবা গরুর গাড়িতে যাতায়াত করত। কিন্তু সেই দিন এখন অতীত। বর্তমানে ফোরহূইলার থেকে শুরু করে নিত্য নতুন জাহাজ উড়োজাহাজের সৃষ্টি হয়েছে । যার ফলে আমরা যোগাযোগ ব্যবস্থাকে হাতের মধ্যে আনতে পেরেছি বললে খুব একটা ভুল হবে না ।

এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্য বা এক দেশ থেকে অন্য দেশে যেতে গেলে আমরা সাধারণত উড়োজাহাজের ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদেরকে জানাবো উড়োজাহাজের এমন কিছু ভয়ঙ্কর ল্যান্ডিং এর কথা যা হয়তো আপনারা কখনো এর আগে দেখেননি বা শোনেননি ।

সম্প্রতি ইউটিউব একটি ভিডিও প্রকাশিত হয়েছে সেখানে বেশ কিছু উড়োজাহাজের ভয়ঙ্কর ল্যান্ডিং সম্পর্কিত ঘটনা তুলে ধরা হয়েছে। প্রথমেই দেখা যায় যে একটি উড়োজাহাজ অ্যামেরিকা থেকে হনুল উদ্দেশ্যে রওনা দেয় কিন্তু ৭৩০০ মিটার উচ্চতায় যখন যাত্রীরা তাদের মাথার উপর আরও একটি বিমান দেখতে পায় তখন তারা অবাক হয়ে যায় ।

কারণ হওয়ার চাপ সেই মুহূর্তে অত্যন্ত কম ছিল । এরপর ধীরে ধীরে বিমান নিচের দিকে অবতরণ করতে শুরু করে । যখন তিন হাজার মিটারের মধ্যে বিমানটি চলাচল করে তখন প্রচন্ড গতিবেগে হাওয়ার সাথে মোকাবিলা করতে হয় তাদেরকে যার ফলে বাধ্য হয়ে পাইলট বিমানটিকে জরুরি অবতরণ করেন 

ইউক্রেনের তুরকিশ কোম্পানির বিমান উড়ার ছিলেন তিনি দুর্গম জায়গায় একটি দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমান ল্যান্ডিং করিয়েছিলেন।সেটা খুবই কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে যেখানে বিমানে 120 জন যাত্রী এবং 6 জন ক্রু মেম্বার উপস্থিত ছিলেন।

নিভানা থাকা সমস্ত তাদের প্রাণ বাঁচান আলেকজান্ডার বো এ ঘটনাকে বলা হয় আকাশে উড়েছিল তখন প্রায় 12 মিটার উঁচুতে আবহাওয়া এবং প্রবল বাতাসের কারণে বিমানের কাচ ভেঙ্গে যায় ফলে কিছুই দেখতে পাচ্ছিলো না। তখন ফিরে আসার সিদ্ধান্ত নেন চিন্তাভাবনা করে পালট ছোট ছোট মাথায় রেখে বিমানকে সুরক্ষিতভাবে রানওয়েতে নামিয়ে আনেন।যেটা ছিল এখানে অনেক কিছুই হতে পারতো আর বুদ্ধিকে কাজে লাগাই এবং অনেকের প্রাণ বেঁচে যায়।

Back to top button