এতো বড়ো সেলিব্রিটি হয়েও নেই কোনো অহংকার! বাড়ির লক্ষ্মীপুজোয় নিজে হাতে সিন্নি তৈরি করে তাক লাগালেন বুম্বা দা

নিজস্ব প্রতিবেদন: দুর্গাপূজার আমেজ কাটতে না কাটতেই চলে এসেছিল কোজাগরী লক্ষ্মীপুজো। প্রায় বছর দুয়েক সময় পড়ে পরিস্থিতি অনেকটা স্বাভাবিক হওয়ায় এ বছর একটু জাঁকজমক সহকারে পুজোর আয়োজন করতে পেরেছে বাঙালি। মূল্যবৃদ্ধির বাজারেও যথাসম্ভব উপাচার জোগাড় করে মা লক্ষ্মীর আরাধনায় মেতে উঠেছেন সকল মানুষ। যদিও আশ্বিন মাসের শুক্লপক্ষে শেষ পূর্ণিমা তিথিতে কোজাগরীর লক্ষ্মীর আরাধনা করা বাঙালির রক্তে আছে।

সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সেলিব্রিটিরা সকলেই কিন্তু এই লক্ষী পুজোতে অংশগ্রহণ করেছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় কমবেশি তার অনেক ছবি কিন্তু আমরা দেখতে পেয়েছি। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করে নেব টলিউড ইন্ডাস্ট্রির অত্যন্ত জনপ্রিয় অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ওরফে বুম্বাদার বাড়ির লক্ষ্মী পূজার কথা। কিছু সময় আগেই নেট মাধ্যমে একটি ছবি ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে যেখানে দেখা যাচ্ছে একেবারে নিজের হাতে লক্ষ্মী পূজার আয়োজন করছেন স্বয়ং প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়।।

যে ছবিটি ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে সেখানে দেখা যাচ্ছে দুধ সাদা রঙের একটি পাঞ্জাবীর সাথে আকাশি রং এর ধুতি পড়ে রয়েছেন অভিনেতা। আর পাশেই রয়ে বসে রয়েছেন স্ত্রী অর্পিতা। অর্পিতার পরনে রয়েছে লাল রঙের একটি সুন্দর শাড়ি। পাশাপাশি বসে দুজনেই পুজোর আয়োজনের কাজে ব্যস্ত হয়ে রয়েছেন।

নিজের হাতেই স্ত্রী অর্পিতার সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সিন্নি তৈরি করছিলেন প্রসেনজিৎ।ময়দা, দুধ, চিনি, রাবড়ি, সন্দেশ, কাজু, কিশমিশের মতো সুস্বাদু উপকরণ দিয়ে মেখেছেন সিন্নি। পুজোগন্ডার দিনে নিজের বুম্বাদা ইমেজ ছেড়ে বেরিয়ে এসে অভিনেতা হয়ে ওঠেন একেবারে ঘরের ছেলে। অভিনেতার এই রূপ দেখে রীতিমতন অবাক হয়ে গিয়েছেন কমবেশি সকলেই।

শুধুমাত্র শিন্নি তৈরি করা নয়, এদিনের লক্ষ্মীপূজোর সমস্ত ধরনের আয়োজন একার হাতেই তৈরি করেছেন অভিনেতা। অবশ্যই তাকে এ কাজে সাহায্য করেছিলেন স্ত্রী অর্পিতা। অন্ততপক্ষে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ছবিগুলি দেখে কিন্তু এমনটা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। একটি টিভি চ্যানেলের কভারেজে দেখতে পাওয়া গিয়েছিল যে পুষ্পাঞ্জলি দেওয়ার পরে জোড়হাতে দেবী লক্ষ্মীর সামনে দীর্ঘক্ষন বসেছিলেন প্রসেনজিৎ।

নিজের বাড়ির পুজোর সমস্ত কাজ শেষ করে রাতেই বোনের বাড়িতে পৌঁছেছিলেন তিনি। আসলে অভিনেতার বোন পল্লবী লক্ষ্মীপূজো উপলক্ষে নিজের হাতে ভোগ রান্না করে থাকেন। বোন ভোগ রান্না করছে আর দাদা থাকবে না এটা কি হতে পারে! এই প্রসঙ্গে প্রসেনজিতের বোন পল্লবী জানিয়েছেন, “সবাই বলে দাদা নাকি খায় না। তবে পছন্দের খাবার হলে কিন্তু গুছিয়ে খায়। যেমন প্রতিবার ভোগ চেখে দেখে ও। আসলে মানুষটা খায়ই কম”!

তবে শুধুমাত্র প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় নয়, অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিকের একটি ছবি ও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে উঠে এসেছে। এখানে দেখা যাচ্ছে তারকাসুলভ আচরণ ছেড়ে একটি হলুদ রঙের শাড়ি পড়ে একেবারে ঘরের মেয়ের মতন দেবী লক্ষ্মীর আরাধনায় মগ্ন হয়ে রয়েছেন তিনি। যদিও কোয়েলের কাছে এটা কোন নতুন ব্যাপার নয়। কারণ কোয়েলের বাড়ির অর্থাৎ মল্লিক বাড়ির দুর্গা পুজো কিন্তু আমাদের সকলের কাছেই অত্যন্ত পরিচিত।

কলকাতার এই অন্যতম সাবেকি দুর্গাপুজো গুলির মধ্যে রয়েছে মল্লিক বাড়ির পুজো। চলতি বছরের দুর্গা পুজোতেও আমরা অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিককে দেখেছিলাম কিভাবে তিনি বাবা-মা এবং স্বামী সন্তানকে নিয়ে পুজোর জোগাড়ে মেতে উঠেছিলেন। এমনকি নিজের হাতে ভোগ পরিবেশন করতেও দেখা গিয়েছিল তাকে। সেলিব্রিটিদের কথা বলতেই যারা ভেবে থাকেন অত্যন্ত অহংকারী মানুষদের ছবি,সেই ইমেজ কিন্তু এক ধাক্কায় ভেঙে দিয়েছেন এই তারকারা।

Back to top button