রচনা ব্যানার্জির আসল নাম রচনা নয়! জানেন কোন সাদামাটা নাম থেকে আজ তিনি হলেন সবার প্রিয় রচনা?

নিজস্ব প্রতিবেদন: টলিউড ইন্ডাস্ট্রির একটি অন্যতম পরিচিত মুখ রচনা ব্যানার্জি। তবে শুধুমাত্র বাংলা নয় ওড়িয়া চলচ্চিত্রেও কিন্তু অল্প সময়ের মধ্যেই নাম অর্জন করেছেন তিনি। বিভিন্ন জনপ্রিয় অভিনেতাদের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে দেখা গিয়েছে তাকে। পরপর হিট সিনেমা, পরপর হিট অভিনেতাদের সঙ্গে কাজ তাঁকে পৌঁছে দিয়েছে খ্যাতির চূড়ায়। বর্তমানে বড় পর্দা থেকে দূরে থাকলেও নিয়মিত ছোট পর্দার জনপ্রিয় শো দিদি নাম্বার ওয়ান এর সঞ্চালনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তিনি।

রচনা ব্যানার্জীর ছাড়া যেন দিদি নাম্বার ওয়ান এর অনুষ্ঠান একেবারেই ভাবা যায় না। তবে আপনারা কি কেউ জানেন রচনা ব্যানার্জীর আসল নাম কিন্তু রচনা নয়! অভিনয় জগতে পা রাখার আগে অনেক তারকারাই কিন্তু নিজেদের নাম পরিবর্তন করে থাকেন। রচনা ব্যানার্জি হলেন তেমনি একজন। ইন্ডাস্ট্রিতে আসার পরে বহু পরিশ্রম করতে হয়েছিল রচনা ব্যানার্জিকে। অল্প সময়ের মধ্যেই কিন্তু সাফল্য পাননি তিনি। তবে একটা সময়ের পর তার জনপ্রিয়তা এত দূর পর্যন্ত পৌঁছে যায় যে রচনা ব্যানার্জি থাকলেই সেই ছবি রীতিমতো হিট হয়ে যেত।

ইন্ডাস্ট্রিতে আসার আগে বাবা-মায়ের দেওয়া নাম পাল্টে ফেলেছিলেন রচনা ব্যানার্জি। অনেকেই তার সেই পুরনো নাম কিন্তু জানেন না। শুরুতেই জানিয়ে রাখি অভিনেত্রীর আসল নাম ঝুমঝুম ব্যানার্জি। যখন তিনি ইন্ডাস্ট্রিতে আসেন তখন টলিউডের অন্যতম পরিচালক সুখেন দাস তার নাম পরিবর্তন করে দেন এবং তার নতুন নাম হয় রচনা। পরবর্তীতে এই নামেই একটি ব্র্যান্ড হয়ে ওঠেন রচনা ব্যানার্জি। তার ঝুলিতে রয়েছে একাধিক সুপার হিট সিনেমা এবং বিভিন্ন অনুষ্ঠান। প্রসেনজিৎ থেকে শুরু করে সমকালীন বিভিন্ন জনপ্রিয় অভিনেতাদের সঙ্গে স্ক্রীন শেয়ার করতে দেখা গিয়েছে রচনা কে।

তবে ইন্ডাস্ট্রিতে তার নাম রচনা হলেও,স্কুলের শংসাপত্র থেকে শুরু করে মিস ক্যালকাটার খেতাব… সবতেই ছিল নায়িকার ঝুমঝুম নামটিই। প্রসঙ্গত অভিনেতা পরিচালক সুখেন দাস ছিলেন রচনার বাবার বন্ধু। তিনি প্রথম তাকে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তবে রচনার পিতৃ প্রদত্ত ঝুমঝুম নামটা তার পছন্দ হয়নি।। তাই অভিনয় জগতে অভিষেক ঘটানোর আগে নায়িকার এই নাম পরিবর্তন করে রচনা রেখে দেন সুখেন দাস।

তবে এই নাম রাখা নিয়েই রয়েছে কিন্তু আরও একটি গল্প। জানা যায় রবীন্দ্র রচনাবলী থেকে সুখেন দাস এই নামটি খুঁজে বের করেছিলেন। সুখেন দাশের হঠাৎই মনে হল, রবীন্দ্র রচনাবলী শব্দবন্ধেই লুকিয়ে আছে সেই নাম যেটা পরে দেওয়া হলো ঝুমঝুমকে– ‘রচনা’। সেই থেকে ঝুমঝুম রচনা নামেই বিখ্যাত হলেন।

বর্তমানে নায়িকার বয়স ৪৯ বছর। কিন্তু তাকে দেখলে বয়স বোঝার একেবারেই উপায় নেই। যেকোনো তরুণ অভিনেত্রীদের টেক্কা দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন রচনা ব্যানার্জি। তার সঞ্চালনায় দিদি নাম্বার ওয়ান অনুষ্ঠান দিন প্রতিদিন মানুষের মধ্যে ক্রমাগত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। পাঠকদের উদ্দেশ্যে জানিয়ে রাখি, ১৯৭৪ সালের অক্টোবর মাসে কলকাতায় জন্মগ্রহণ করেছিলেন রচনা।

অভিনয় শুরু করার আগে বেশ কয়েকটি সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলেন এই নায়িকা। প্রথম জীবনে তিনি ওড়িয়া চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় অভিনেতার সিদ্ধার্থ মহাপাত্র কে বিয়ে করেছিলেন। তবে তাদের দাম্পত্য খুব বেশিদিন টেকেনি। পরে ব্যবসায়ী প্রবাল বসুকে বিয়ে করেন নায়িকা এবং তাদের একটি পুত্র সন্তান হয়।

Back to top button