সামনেই পুজো! খুব কম খরচে এবার বাড়িতেই এই সহজ দুর্দান্ত উপায়ে করে নিন ১০০% ওয়াটারপ্রুফ মেকআপ!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- আর মাত্র কয়েক দিনের অপেক্ষার পরেই শুরু হয়ে যাবে বাঙালির বহু প্রতীক্ষিত উৎসব দুর্গাপুজো। পূজো মানেই প্রচুর পরিমাণে আনন্দ, সাজগোজ আর জমিয়ে খাওয়া দাওয়া। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা তাই আপনাদের জন্য নিয়ে এসেছি একটি পুজো স্পেশাল মেকআপ টিউটোরিয়াল। তবে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুধুমাত্র শ্যামলা বা কালো বর্ণের মেয়েদের জন্য যারা মেকআপ করতে চান। প্রথমেই জানিয়ে রাখি মেকাপের মাধ্যমে কখনোই কিন্তু ফর্সা হওয়ার সম্ভব নয়।

মেকআপ সবসময় আমাদের সুন্দরভাবে রিপ্রেজেন্ট করতে বা নিজেকে সাজাতে সাহায্য করে। ভগবান যাকে যা ত্বক উপহার দিয়েছেন সেটাই কিন্তু সবথেকে বেশি সুন্দর। তাই গায়ের রং যাই হোক না কেন আপনি কিন্তু আপনার মতই। চলুন তাহলে আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনটি শুরু করা যাক। প্রসঙ্গত আজ যে মেকআপটি আমরা আপনাদেরকে শেয়ার করতে চলেছি সেটি কিন্তু তুমুল গরমেও চট করে উঠে যাবে না। অনেক ক্ষেত্রেই কি হয় পূজোর সময় অত্যধিক গরমে বেরোলে কিন্তু আমাদের সাজগোজ নষ্ট হয়ে যায়। তবে আজকের এই প্রতিবেদনটি ফলো করলে কিন্তু আপনাদের আর সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না।

শ্যামলা বর্ণের মেয়েদের জন্য পুজো স্পেশাল মেকআপ টিউটোরিয়াল:

১) প্রথমেই আপনাদের একটি আইস কিউব নিয়ে ভালো করে নরম কোনো কাপড়ের সাহায্যে মুখে ঘষে নিতে হবে। দুই থেকে তিন মিনিট এরকম করার পর তারপর আপনাদের ময়শ্চারাইজার এপ্লাই করতে হবে। JOY এর এলোভেরা মশ্চারাইজার আপনারা এ ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারেন। এরপর ঠিক একই ব্র্যান্ডের সানস্ক্রিন পেয়ে যাবেন আপনারা। এটা কিন্তু আপনারা মাত্র ১০ টাকা তেই পেয়ে যাবেন। এরপর ইনসাইটের সিলিকন বেস প্রাইমার আপনাদের ভালো করে মুখে লাগিয়ে নিতে হবে।

এরপর আপনাদের চোখের নিচের ডার্ক সারকেল এবং ঠোটের উপরে আর নাকের কোণার অংশে লাগিয়ে নিতে হবে কনসিলার। এরপর আপনাদের একটি ছোট ব্লেন্ডার দিয়ে ভাল করে প্রাইমার আর কনসিলার কে ত্বকে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। এরপর আপনাদের নিয়ে নিতে হবে মেইবি লাইনের ফাউন্ডেশন। খুব সহজেই এগুলি কিন্তু বাজারে আপনারা স্যাসেজে পেয়ে যাবেন। তবে মোটামুটি ২০০ টাকার মধ্যে কিনতে চাইলে কিন্তু বোতল কিনে নিতে পারেন।

২) ফাউন্ডেশন লাগিয়ে আপনাদের বিউটি ব্লেন্ডার ব্যবহার করে এটিকে ত্বকে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। খেয়াল রাখবেন আপনার ব্লেন্ডারের মধ্যে কিন্তু যেন অতিরিক্ত কোন জল না থাকে। এরপর আপনাদের চোখের ঠিক নিজের অংশে আবারো একটি লাইট কনসিলার ব্যবহার করে নিতে হবে। যারা পারফেক্টভাবে হাইলাইটিং করতে চান বিশেষ করে শ্যাম বর্ণ মহিলারা তাদের জন্য কিন্তু এই কনসিলার খুবই ভালো কাজ দেবে। এরপর আপনাদের ভালো করে ত্বকের উপরে লুজ পাউডার লাগিয়ে নিতে হবে। এটি কিন্তু খুব সহজেই আপনাদের মেকাপ সেট করতে সাহায্য করবে।

৩) এরপর আপনাদের একটি আইব্রো পেন্সিল ব্যবহার করে ভালোভাবে আইব্রো সেট করে নিতে হবে। তবে খুব বেশি ডার্ক সেট কিন্তু আপনারা ব্যবহার করবেন না। এরপর একটু কনসিলার দিয়ে চোখের পাতার উপরের অংশে আপনাদের আইব্রোর নিচের জায়গাটা সেট করে নিতে হবে। বিউটি ব্লেন্ডার দিয়ে এই অংশটিকে ব্লেন্ড করে নিয়ে আবারো একটু লুজ পাউডার লাগিয়ে নিতে হবে। এরপর হাতে করে সামান্য আইশ্যাডো নিয়ে আপনাদের চোখের উপরের অংশে লাগিয়ে নিতে হবে।

বাজারে কম দামের মধ্যে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের আইশ্যাডো আপনারা পেয়ে যাবেন। এরপর একটি আই কালার নিয়ে চোখের ঠিক নিচের অংশে আপনাদের হালকা করে টেনে নিতে হবে। তারপর আপনাদের যথাক্রমে লাগিয়ে নিতে হবে আইলাইনার এবং মাসকারা। আইলাইনার টানার সময় কিন্তু খুব সাবধানে একেবারে চোখের শেষের দিক থেকে অর্থাৎ বাইরের অংশ থেকে আপনারা টানবেন।

ইনার কর্নার থেকে আইলাইনার কিন্তু চোখ থেকে জল বেরোতে পারে। হাতের সাহায্যে নাকের উপর এবং গালের চারপাশের অংশে হালকা করে ব্লাশার এপ্লাই করে নিন। সবশেষে একটি ম্যাচিং লিপস্টিক আপনারা এপ্লাই করে নিন। যেহেতু এগুলি সামান্য ভারী মেকআপ তাই অবশ্যই চেষ্টা করবেন যে লিকুইড ম্যাট লিপস্টিক ব্যবহার করার। আপনার পোশাকের পছন্দের রং অনুযায়ী এটা কে আপনারা বেছে নিতে পারেন। তবে যেহেতু এটা অষ্টমীর দিনের সাজ তাই অবশ্যই লাল রং ব্যবহার করলেই কিন্তু বেশি মানাবে।

Back to top button