কাঁচের টুকরো দিয়ে ঢাকা মুখ আর স্তনযুগল! জিন্সের জিপ খুলে ফের প্রকাশ্যে অনন্য রূপে ছক্কা হাঁকালেন ‘সেক্সি’ উর্ফি!

নিজস্ব প্রতিবেদন:- নিজের নিত্যনতুন ফ্যাশন সেন্স এর কারণে কিন্তু প্রায় সময় বিতর্কে মুখে থাকেন অভিনেত্রী মডেল উর্ফি জাভেদ। সম্প্রতি কিছুদিন আগে এই অভিনেত্রী মডেলে প্রশংসা করেছিলেন স্বয়ং বলিউড অভিনেতা রণবীর সিং। উর্ফিকে রীতিমতো ইন্ডাস্ট্রির নতুন ‘ফ্যাশনিস্তা’ তকমা দিয়েছেন রণবীর। কিন্তু সম্প্রতি শনিবার ‘বিগ বস’ খ্যাত এই অভিনেত্রীর যা ভিডিও সামনে এসেছে সেটা দেখে রীতিমতন অবাক হয়ে পড়েছেন নেটিজেনরা। এরকম ভিডিও যে কেউ শুট করতে পারে সেটাই এত বেশিরভাগ মানুষের ধারণার বাইরে। প্রসঙ্গত এর আগেও অনেকবার অন্তর্বাস ছাড়া নানান ধরনের নিত্যনতুন পোশাকে ধরা দিয়েছিলেন তিনি।

তবে কখনোই সেরকম বিতর্কবার সমালোচনা হয়নি যা তার সাম্প্রতিক ভাইরাল ভিডিও কে নিয়ে হয়েছে। হয়তো আপনাদের মনেও প্রশ্ন আসছে এমন কি রয়েছে সেই ভিডিওতে তা নিয়ে! উর্ফির সেই ভাইরাল ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে তার পরনে ডেনিম জিন্স, তবে তার জিপ খোলা, বুক ঢেকেছেন কাচের বেশকিছু টুকরো দিয়ে।মুখ দেখাননি সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সেনসেশন। কাচের টুকরো দিয়ে তৈরি মাস্ক দিয়ে গোটা মুখটাই ঢেকে ফেলেছেন তিনি। তারপর হেলেদুলে শরীরি বিভঙ্গে নেটদুনিয়ায় ঝড় তুলেছেন উর্ফি। ব্যাকগ্রাউন্ডে তখন বাজছে ‘ওম শান্তি ওম’ ছবির ‘দরদে ডিস্কো’ গান। তাঁর এমন আজব লুকে মজেছেন নেট নাগরিকরা।

ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর বেশিরভাগ মানুষই কিন্তু তাকে কটাক্ষ করেছেন। অনেকেই রীতিমতো প্রশ্ন তুলেছেন যে এটা কি ধরনের ফ্যাশন বা কি ধরনের পোশাক? আবার অনেকেই কিন্তু তার প্রশংসা করেছেন। যেমন জনৈক ব্যক্তি এই পোস্টে লিখেছেন, ‘আমার এই কনসেপ্টটা বেশ ভালো লেগেছে।’ কারোর কথায়- ‘দেখুন কেটে যায় না যেন’, কারোর মন্তব্য, ‘আপনি যা খুশি তাই পরে ফেলতে পারেন’, কেউ আবার তাঁর লুকের সঙ্গে রাজ কুন্দ্রার লুকের মিল খুঁজে পেয়ে লিখেছেন, ‘ওয়ে রাজ কুন্দ্রা’। তবে উর্ফিকে রাজ কুন্দ্রা বলে উল্লেখ করার পেছনে কিন্তু একটি বিশেষ কারণ রয়েছে।

View this post on Instagram

A post shared by Uorfi (@urf7i)

কিছুদিন আগে বাড়িতে গণপতি বাপ্পাকে আনার সময় বড় আকারের একটা মাস্কে কপাল থেকে থুতনি পর্যন্ত পুরোটাই ঢেকে বের হয়েছিলেন শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রা। শিল্পার স্বামী সেই মাস্ক ঢাকা মুখের ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল। এবার উর্ফির লুকে সেই রাজ কুন্দ্রাকেই খুঁজে পেলেন নেট নাগরিকরা। তাই স্বাভাবিকভাবেই মজার ছলে রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে উল্লেখ করেছেন অনেকে। প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে সম্পূর্ণ অন্য কারণে খবরে উঠে এসেছিলেন উর্ফি জাভেদ। তাঁর অভিযোগ ছিল, দীর্ঘদিন ধরে এক পাঞ্জাবি অভিনেতা তাঁকে সাইবার ধর্ষণের হুমকি দিয়ে আসছেন।

তাঁর সঙ্গে ভিডিয়ো সেক্স না করলে ছবি বিকৃত করে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হচ্ছিল বলে দাবি করেন উর্ফি। নিজের পোস্টে এই অভিনেত্রী মডেল লিখেছিলেন, “এই সেই ব্যক্তি যে আমায় দীর্ঘদিন ধরে হেনস্থা করে চলেছে, এখনও আমি একইরকম হেনস্থার শিকার। ২ বছর আগে কেউ বা কারা আমার ছবি অশ্লীলভাবে বিকৃত করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়। সেসময় আমি কতটা খুবই খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে গিয়েছি। এই নিয়ে পুলিসের কাছে আমি অভিযোগও দায়ের করি।

এমনকি ২ বছর আগেও আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় এবিষয়ে পোস্ট করেছিলাম, যে পোস্টটি এখনও আমার সোশ্যাল মিডিয়ায় রয়েছে। এই ব্যক্তি আমার অশ্লীলভাবে বিকৃত করা সেই ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ভিডিয়ো সেক্সের প্রস্তাব দেয়। বলে যৌনতায় লিপ্ত না হলে ও আমার সেই ছবি বিভিন্ন বলিউডের পেজে ছড়িয়ে দেবে এবং আমার কেরিয়ার শেষ করে দেবে। হ্যাঁ, এই ব্যক্তি-ই আমায় সাইবার ধর্ষণের হুমকি দিয়েছিল। হ্যাঁ, সাইবার ধর্ষণ শব্দটাই এখানে প্রযোজ্য”। পাশাপাশি বিগ বস ওটিটি খ্যাত উরফির আরো বক্তব্য ছিল যে, “আমি যে শুধু এই ব্যক্তির উপর বিরক্ত, সেটাই নয়।

আমি এটা নিয়ে প্রথমে গোরেগাঁও থানায় পরে মুম্বই পুলিসের কাছে অভিযোগ দায়ের করি। ১৪ দিন কেটে গেছে, এখনও কোনও পদক্ষেপ করা হয়নি। আমি সত্যিই হতাশ। আমি অনেকের কাছেই মুম্বই পুলিসের প্রশংসা শুনেছি। তবে এই ব্যক্তিটিকে নিয়ে ওদের ব্যবহারে অদ্ভুত। এমনকি এই ব্যক্তি আর অনেক মহিলার সঙ্গেই খারাপ করেছে, সেটা বলার পরও কোনও লাভ হয়নি। এখনও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এই লোকটি সমগ্র সমাজ এবং মহিলাদের জন্যই ক্ষতিকর। এই লোকটির বাঁচার কোনও অধিকারই নেই। পুলিস কী পদক্ষেপ করবে জানি না, তবে এই লোকটির পঞ্জাব ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে দিব্যি কাজ করে বেড়াচ্ছে”।

Back to top button