গোখরো সাপের মাথা পায়ে করে চটকে দিলো বয়স্ক ঠাকুমা, চক্ষু চড়কগাছ নেটিজেনদের, ভাইরাল ভিডিও

নিজস্ব প্রতিবেদন: সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্রমাগত কোনো না কোনো জিনিস ভাইরাল হতে থাকে।এমন অনেক জিনিস রয়েছে যা নেট মাধ্যমকে অবাক করে রেখে দিতে বাধ্য করে। বর্তমান সময়ে দাঁড়িয়ে নেট মাধ্যম সাধারণ মানুষের জন্য একটি উল্লেখযোগ্য অবসর কাটানোর মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। নেট মাধ্যমে কিন্তু সাপ সংক্রান্ত যেকোন ভিডিও খুব দ্রুত গতিতে ভাইরাল হয়ে ওঠে।

সম্প্রতি কয়েকদিন আগেও ঠিক এমনটাই ঘটেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক বৃদ্ধা মহিলা রান্নাঘরে কাজ করতে যাওয়ার সময় একটা খরিস গোখরো সাপের মাথা রীতিমত পা চাপা দিয়ে ফেলেছেন। যদিও পড়ে সাপটি দেখার পরে রীতিমত আতঙ্কিত হয়ে ওঠেন তিনি। এরপরেই তার পরিবারের সদস্যরা আতঙ্কিত হয়ে সর্পরক্ষককে খবর দেন এবং তিনি এসে সেই সাপটাকে উদ্ধার করে নিয়ে যান। নিঃসন্দেহে খুব জোর বেঁচে গিয়েছেন ওই বৃদ্ধা ঠাকুমা।

কারণ আরেকটু হলেই এই সাপের কারণে কিন্তু তার বড়সড়ো বিপদ হতে পারতো। এই সমস্ত বিষধর সাপ সাধারণত আশ্রয়ের খোঁজে বা সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্যই মানুষের বাড়িতে বাসা বেঁধে থাকে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য এই সাপটির ইংরেজি নাম ইন্ডিয়ান কোবরা। বৈজ্ঞানিক নাম নাজা নাজা। এটি বিষধর এলাপিডি পরিবারের অন্তর্ভুক্ত একটি সর্পগোষ্ঠী। সকল গোখরা প্রজাতির সাপ উত্তেজিত হলে ফণা মেলে ধরে। সাপের ঘাড়ের লম্বা হাড় স্ফীত হয়ে ওঠে, তাতে চমৎকার ফণাটি বিস্তৃত হয়।

কোবরা ভারতীয় উপমহাদেশের বিভিন্ন দেশ ছাড়াও মিশর, আরব, দক্ষিণ আফ্রিকা, বার্মা, চীন ইত্যাদি দেশ ও অঞ্চলে দেখা যায়। অনেকে ভুলবশত গোখরা/কেউটে বলতে শুধুমাত্র স্পেকটাকলড কোবরা বা মনোকল্ড কোবরাকে বুঝে থাকে। এটি আসলে একটি বৃহৎ সর্পগোষ্ঠির সাধারণ নাম। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল এই ভিডিওটি কোন অঞ্চলের সেটা এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি। REPTO PEDIA নামের একটি জনপ্রিয় ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই ভাইরাল ভিডিওটি শেয়ার করা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত প্রায় ৬ লক্ষ ২ হাজারের বেশি মানুষ এই ভিডিওটি দেখে নিয়েছেন এবং ভিডিওটি লাইক করেছেন প্রায় ৩ হাজার ৭০০ মানুষ। প্রতিবেদনটি ভালো লেগে থাকলে আপনারাও কিন্তু এই ভয়াবহ ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন।

Back to top button