সকালের জলখাবারে খুব সহজেই বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের আলুর খাস্তা কচুরি ,রইলো স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সকালের জলখাবার হোক বা বিকেলের নাস্তা সবকিছুতেই কিন্তু আলুর খাস্তা কচুরি একেবারেই আদর্শ। কোনরকম তড়ি-তরকারি ছাড়াই আপনারা এটিকে শুধু খাবার হিসেবে গ্রহণ করতে পারেন। আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনে আমরা আলোচনা করে নেব কিভাবে আপনারা বাড়িতে আলুর খাস্তা তৈরি করতে পারবেন অত্যন্ত সহজেই। অনেকেই মনে করেন এই খাস্তা বানানো অত্যন্ত কঠিন কাজ। তবে তা কিন্তু একেবারেই নয়। খুব সহজ পদ্ধতিতে এই বাড়িতে আলুর খাস্তা বা খাস্তা কচুরি তৈরি করা যেতে পারে। চলুন আর দেরি না করে এই রেসিপিটি তৈরি করার স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি জেনে নেওয়া যাক।

  • আলুর খাস্তা কচুরি তৈরির স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি:

এর জন্য প্রথমেই আমাদের প্রয়োজনমতো ময়দা নিয়ে ভালো করে মেখে ডো তৈরি করে নিতে হবে। ময়দা মাখার জন্য আপনারা স্বাদমতো লবণ আর এক টেবিল চামচ পরিমাণ রান্নার তেল ব্যবহার করবেন। আপনারা চাইলে কিন্তু ময়দার পরিবর্তে সাদা আটা দিয়েও এই রেসিপিটি তৈরি করে নিতে পারেন। ময়দা মাখা হয়ে গেলে আমাদের আলুর পুর তৈরি করে নিতে হবে। এর জন্য প্রথমেই আলু গুলিকে খোসা ছাড়িয়ে ভালো করে স্লাইস আর কিউব করে কেটে নিন।

এবারে ভালো করে আলু গুলিকে ধুয়ে নিয়ে আলাদা একটি পাত্রে তুলে রাখতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে কড়াইতে সরষের তেল গরম করার পর এতে সামান্য পরিমাণ রসুন ও পেঁয়াজকুচি দিয়ে নাড়াচাড়া করতে থাকুন।

এগুলি সামান্য ভাজা হয়ে গেলে আপনারা পাঁচফোড়ন আর গুঁড়ো মসলা এর মধ্যে ছড়িয়ে দিন। এবার আপনাদের এর মধ্যে দিয়ে দিতে হবে হলুদ গুঁড়ো, জিরা গুঁড়ো এবং ধনের গুঁড়ো।

পর আপনাদের বেশ কিছুক্ষণ মসলা বসিয়ে তার মধ্যে আগে থেকে টুকরো করে কেটে রাখা আলু গুলিকে দিয়ে দিতে হবে।

মসলার সাথে ভালো করে আলু কষে গেলে এতে এক কাপ পরিমাণ জল ঢেলে দিন।

এখন পর্যন্ত না আলু গুলি সেদ্ধ হয়ে আসছে আপনাদের অপেক্ষা করতে হবে। এরপর সামান্য ধনেপাতা ছড়িয়ে দিলেই আমাদের আলুর পুর তৈরি হয়ে যাবে।

এবার আগে থেকে মেখে রাখা ময়দা ভালো করে বেলে রুটি তৈরি করে নিতে হবে।

তারপর এর মধ্যে আলুর পুরগুলিকে দিয়ে ভালো করে এপার ওপার বন্ধ করে দিন যাতে পুর না বেরিয়ে যায়।

হুবহু লুচির মতন করে আপনাদের আলু গুলিকে বেলে নিতে হবে।

এরপর গরম তেলে পুর সমেত লুছিগুলি ভেজে নিলেই কিন্তু তৈরি হয়ে যাবে আলুর খাস্তা কচুরি।

আমাদের আজকের এই বিশেষ টিপস আপনাদের কেমন লাগলো তা অবশ্যই জানাতে ভুলবেন না। এই ধরনের আরো দুর্দান্ত রেসিপি সম্পর্কে জানতে আমাদের পরবর্তী প্রতিবেদনগুলির উপর নজর রাখতে পারেন।

Back to top button