জানেন ‘কোকিল কণ্ঠী’ লতা মঙ্গেশকরের আসল নাম কি? ৯৯% মানুষই বলতে পারবেন না!

নিজস্ব প্রতিবেদন: ‘কোকিল কণ্ঠী’ লতা মঙ্গেশকরের (Lata Mangeshkar) গান সমগ্র ভারতবাসীর হৃদয়ে গেঁথে রয়েছে। তিনি ইহলোকে না থাকলেও মানুষের হৃদয়ে তিনি আজও স্মরণীয়। সঙ্গীত জগতে এখনও ‘লতা মঙ্গেশকর’ একজনই। কিন্তু, জানেন কি?

তিনি সবার হৃদয় জুড়ে যে নামে রয়েছেন, সেটি তাঁর প্রকৃত নাম নয়। হ্যাঁ, প্রকৃতপক্ষে তাঁর অন্যই নাম ছিল, তাঁর নামের প্রত্যেকটি অক্ষরে রয়েছে অতীতের ভিন্ন ঘটনার অস্তিত্ব। এবার প্রশ্ন হল, তাঁর নাম কেন পাল্টানো হয়েছিল? কী রহস্যই বা রয়েছে এর পিছনে? জেনে নেওয়া যাক এই বিশেষ আর্টিকলে।

লতা মঙ্গেশকর সঙ্গীত জগতে একাধিক নামে পরিচিত। কখনও কোকিল কণ্ঠী, কখনও মধুকণ্ঠী নামে তিনি সঙ্গীতপ্রেমীদের হৃদয়ে বিরাজমান। কিন্তু তাঁর প্রকৃত নাম মোটেই লতা মঙ্গেশকর নয়। হ্যাঁ, ঠিকই শুনলেন, তাঁর প্রকৃত নাম হল কুমারী লতা দীননাথ মঙ্গেশকর (Deenanath Mangeshkar)।

‘লতা দীননাথ মঙ্গেশকর’, এই নামটির প্রত্যেকটিতে এক আলাদা আলদা কাহিনী লুকিয়ে রয়েছে। তাঁর নামে দীননাথ নামটি ছিল তাঁর বাবার জন্য। কারন, লতাজির বাবার নাম ছিল ‘দীননাথ মঙ্গেশকর’। তাঁর নামে মঙ্গেশকর নামটি যুক্ত হওয়ার পিছনে রয়েছে আবার লতাজির বাবার মা ইসুবাই দেবদাসীর অবদান, অবশ্যই পরোক্ষভাবে।

লতাজির বাবা তাঁর মা সংযুক্ত বেশি ছিলেন। তাঁর মা গোয়ার (Goa) ‘মাঙ্গেশি’ (Mangeshi village) গ্রামের হওয়ায় পরবর্তীকালে তিনি নিজের ও নিজের মেয়ের নামের সঙ্গে জুড়ে দেন ‘মঙ্গেশকর’ উপাধি’।

অপরদিকে, জীবনের প্রথম দিকে লতাজির নামেতে ‘লতা’ শব্দটিও ছিল না। জন্মের পর তাঁর নাম দেওয়া হয়েছিল ছিল ‘হেমা’ (Hema)। তাঁর নাম ‘লতা’ হওয়ার পিছনেও রয়েছে একটি দারুণ কাহিনী।দীননাথ মঙ্গেশকরের অধীনে আয়োজিত একটি নাটকে ‘ছোট লতা’ অভিনয় করেছিলেন। উক্ত নাটকে লতাজির চরিত্রের নাম ছিল ‘লতা’। তাঁর সেই অভিনয়ে বাবা দীননাথ এতটাই মুগ্ধ হয়েছিলেন যে, তিনি তাঁর কন্যার নাম পরিবর্তন করে ‘লতা’ রাখার সিদ্ধান্ত নেন।

Back to top button