খুব কম ওজনের মধ্যে রেগুলার ইউজের সোনার শাঁখা বাঁধানোর আধুনিক ডিজাইনের ৮টি দুর্দান্ত কালেকশন দেখে নিন

নিজস্ব প্রতিবেদন:- বিয়ে বাড়ি থেকে শুরু করে পুজো পার্বণ সবকিছুতেই কিন্তু গয়না হিসেবে মানুষের প্রথম পছন্দ সোনা। মহিলা পুরুষ নির্বিশেষে সমস্ত মানুষেরই কিন্তু সোনার প্রতি আকর্ষণ রয়েছে। তবে বর্তমান সময়ে যেভাবে হলুদ ধাতুর মূল্য বৃদ্ধি হয়ে চলেছে তাতে আর সাধারণ মানুষের পক্ষে কিন্তু সোনা কেনা সম্ভবপর হচ্ছে না। তবে সামনেই রয়েছে দূর্গা পুজোর পাশাপাশি ধনতেরাস আর দীপাবলির মতন উৎসব। স্বাভাবিকভাবেই উৎসবের এই সিজন গুলিতে অনেক মানুষই হয়তো হলুদ ধাতু কেনার চেষ্টা করবেন।

এছাড়া বিয়ে বাড়ির জন্য গয়না কেনার প্রচলন তো রয়েছেই। যারা সম্প্রতি সোনার গয়না তৈরি করার কথা ভাবছেন তাদের জন্যই আমাদের আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদন। এখানে আমরা মোটামুটি বিভিন্ন ডিজাইনের মধ্যে সোনার শাখা বাধানো আপনাদেরকে দেখাবো। খুব সহজেই কিন্তু আপনারা এগুলিকে বিভিন্ন অকেশনে পরিধান করে যেতে পারবেন। তবে আপনাদের সুরক্ষার্থে জানিয়ে রাখি কখনই হলমার্ক ছাড়া সোনার গয়না কিনবেন না। দামে কম হলেও এতে কিন্তু ভবিষ্যতে বিপদ হতে পারে।

  • পুজো স্পেশাল বিভিন্ন ডিজাইনের সোনার শাখা বাধানো:

১) যারা পুজোর দিনগুলিতে একটু ইউনিক কালেকশন ট্রাই করতে চাইছেন তারা অবশ্যই কিন্তু আমাদের আজকের এই প্রথম ডিজাইনটি দেখে নিতে পারেন ভালো করে। খুব সুন্দর হালকা কাজের মধ্যে এটাতে গোল ফুলের মতন আর কানের মতন করে একটা অংশ ডিজাইন রয়েছে আর বাদবাকি কিছুটা অংশে রয়েছে সরু পাতের ডিজাইন। মেকিং চার্জ সহ এই শাখাটির দাম পড়বে ১৭,০৫০ টাকা।

২) এইবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখতে চলেছেন সেটার উপরে খুব সুন্দর ভাবে কিছুটা অংশের লম্বাটে পাতের মতন আর বাদবাকিটা অংশে ব্যাকানো নকশা করে কানের মতন ডিজাইন করা রয়েছে। মেকিং চার্জ এবং জিএসটি ছাড়া এই শাখাটির দাম পড়ছে ১৮২০০ টাকা।

৩) এবার যে শাখার ডিজাইনটি আপনারা দেখতে চলেছেন সেটার উপরে খুব সুন্দর কানের মতন ডিজাইন আর চশমার ডিজাইন করা রয়েছে। দারুন এই কালেকশনটি তৈরি করতে আপনাদের খরচ পড়বে প্রায় ১৯,৬০০ টাকা। দারুন একটা নতুনত্ব ডিজাইন, অবশ্যই আপনারা ট্রাই করে দেখতে পারেন।

৪) এবার যে শাখাটি দেখতে চলেছেন সেটাতে পেটি শাখার মতন খানিকটা কাজ রয়েছে। খুব সুন্দর হালকা করে শাখার মধ্যে মিনা করা রয়েছে অর্থাৎ খুলে যাওয়ার কোনো চান্স নেই। এই শাখাটির দাম পড়বে ১৯৮৫০ টাকা।

৫) আমাদের প্রতিবেদনের ৫ নম্বরে যে শাখাটির কালেকশন আপনারা দেখতে চলেছেন সেটার উপরের কিছুটা অংশ একটু কাটা করে পাতের মতন কাজ করা রয়েছে। বাকি অংশ রয়েছে কানের মতন কাজ। এই শাখাটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের খরচ করতে হবে ২০,৮০০ টাকা থেকে ২১ হাজার টাকা পর্যন্ত।

৬) এবার যে শাখাটি আপনারা দেখতে চলেছেন সেটাকে পেটি শাখা বলা হয়ে থাকে। এই শাখাটির মধ্যে খানিকটা ধানের ছড়ার মতন আর খানিকটা ছোট্ট বক্সের মতন অর্থাৎ দুটি ডিজাইনের কম্বিনেশন করা রয়েছে। দারুন এই কালেকশনটি তৈরি করতে গেলে আপনাদের মোটামুটি খরচ করতে হবে জিএসটি ছাড়া এবং মেকিং চার্জ সহ ২২,৮০০ টাকা।

৭) এবার যে কালেকশনটি আপনারা দেখতে চলেছেন সেটার কিছুটা অংশে চওড়া পাতের মতন, কিছুটা অংশে ফুল আর কিছুটা অংশে বরফির মতন ডিজাইন করা রয়েছে।।২১,৬০০ টাকার মধ্যেই কিন্তু দুর্দান্ত এই কালেকশনটি আপনারা তৈরি করে নিতে পারবেন।

৮) আজকের প্রতিবেদনের একেবারে সবশেষে যে শাখার কালেকশনটি আপনাদেরকে দেখাতে চলেছি সেটাও কিন্তু দারুণ ইউনিক একটা কালেকশন। এটিকে মাছ শাখা বলা হয়ে থাকে। মাছের উপরে খানিকটা মিনে করা ডিজাইন রয়েছে আর বাদবাকি অংশটাতে রয়েছে ধানের ছড়ার মতন ডিজাইন যেটা শাখা কে আরো আকর্ষণীয় করে তুলতে সাহায্য করেছে। ২৮,২০০ টাকা মোটামুটি আপনাদের খরচ করতে হবে এই শাখাটি বানাতে গেলে।

প্রসঙ্গত আজকের এই প্রতিবেদনের কোন কালেকশন যদি আপনাদের পছন্দ হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আর দেরি না করে চলে যেতে পারেন সানফ্লাওয়ার জুয়েলার্সে। কলকাতার গড়িয়াহাটের রাসবিহারী এভিনিউতে এই সোনার শোরুমটি অবস্থিত। যদি আপনাদের এই গহনার দোকানে পৌঁছতে কোনরকম অসুবিধা হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে 033 24403344/9002832251/9903729890 এই তিনটি নম্বরের মধ্যে যেকোনো একটিতে ফোন করে নিতে পারেন।

Back to top button