নিউজবিনোদন ও লাইফ স্টাইলভিডিও

জীবনের প্রথম রাখী-বন্ধন উৎসব কেমন করে কাটাল ছোট্ট ইউভান? দারুন ভাইরাল হলো ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- ইউভাণ চক্রবর্তী সম্পর্কে নতুন করে আর বলার কিছু অপেক্ষা রাখে না । আর কয়েক দিনের মধ্যেই তাঁর এক বছর পূর্ণ হবে । কিন্তু এই এক বছর সম্পূর্ণ হতে না হতেই সে শিখে ফেলেছে অনেক কিছু । বাইরে যাওয়ার জন্য বাবা-মায়ের কাছে আর্জি জানাতে শিখেছে । এমনকি গুটি গুটি পায়ে হাটা চলা করতে শিখেছে । এবারের সবকিছুই তাঁর প্রথম ।

দোল থেকে শুরু করে যাবতীয় যা সমস্ত উৎসব বাঙালি রয়েছে সমস্তকিছুই প্রথমবারের মতো অভিজ্ঞতা সঞ্চয় করছে এই ছোট্ট ছেলে । এবার প্রথমবারের জন্য রাখি বন্ধন উৎসব পালন করল শুভশ্রীর ছেলে । শুভশ্রী গাঙ্গুলী প্রতিটা দিন প্রতিটা মুহূর্ত কেটে যায় তাকে নিয়ে । তার খু-নসুটি করে নানান রকম অংশগুলিকে শুভশ্রী গাঙ্গুলী এবং রাজ চক্রবর্তী ক্যামেরাবন্দি করে তার অনুরাগীদের সাথে শেয়ার করে । সেই অর্থে বেড়েই চলে অনুরাগীদের চাহিদা প্রতিনিয়ত ।

জানতে শুরু করে যে প্রতিদিন সে কিরকম কি করছে এবং সে চাহিদার জন্যই প্রতিনিয়ত শুভশ্রী গাঙ্গুলী কোন কোন ভিডিও আপলোড করে থাকে তার সোশ্যাল মিডিয়ার হ্যান্ডেলে । যা দেখে রীতিমত মুগ্ধ হয়েছে তার অনুরাগীরা । হবেই না বা কেন কারণ তার ও যে অনুরাগী সংখ্যা রয়েছে । অর্থাৎ ছোট্ট ছেলের তৈরি হয়ে গেছে ইতিমধ্যে অনুরাগী মহল। বেশ কয়েকদিন আগে প্রকাশিত হয় একটি ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল যে জানলার কাছে ধাক্কা মারছে রাজ্যশ্রী ছেলে ।

কিন্তু কেন ? সেই অর্থে জানা গিয়েছিল যে সে বাইরে বেরোতে চাইছে । বাইরে পরিবেশের সাথে নিজেকে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছে এবং বাইরের পরিবেশ তাকে আকৃষ্ট করছে । তাই সে বাইরে যেতে চাইছে । কিন্তু এই মুহূর্তে রাজ্য তথা দেশের যা অবস্থা তাতে বাইরে বেরোনো মোটেও নিরাপদ নয় । কিন্তু সে বাচ্চা ছেলে এত কিছু বোঝে না । সেই ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছিল সেই সময় নেট মাধ্যমে । তবে আরও একবার অন্য একটি ভিডিও ভাইরাল হলো।

সম্প্রতি আরেকটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে । সেখানে দেখা যাচ্ছে যে শুভশ্রী এবং রাজ চক্রবর্তীর ছেলে কে দেখা যাচ্ছে সেখানে রাখি বন্ধন উৎসব পালন করতে । ছোট্ট দিদিরা প্রত্যেকে তাকে ভালবেসে রাখি পরিয়ে দিয়েছে । এবং দিয়েছে প্রচুর পরিমাণে উপহার । সেই একটা মুহূর্তকে ক্যামেরাবন্দি করা হয়েছে এবং শেয়ার করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button