নিউজ

রাস্তায় বেরিয়ে ট্রাফিক পুলিশের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করলে সঙ্গে সঙ্গে বাতিল করা হবে ড্রাইভিং লাইসেন্স! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- প্রতিনিয়ত ও পাল্টাচ্ছে নতুন নতুন নিয়ম এবং পূরণ নিয়ম গুলো পাল্টে নতুন নিয়মের আনার ফলে অনেক কিছুই বন্ধ হয়েছে । আগে গাড়ি নিয়ে দূরে কোথাও যেতে গেলে অতি অবশ্যই সাথে করে রাখতে হত গাড়ির কাগজপত্র । ড্রাইভিং লাইসেন্স ও অন্যান্য তথ্য গু-লি । কিন্তু সে ক্ষেত্রে দেখা যায় একাধিক সমস্যা । কখনও সে কাগজপত্র গুলো হারিয়ে তো কখনো বৃষ্টির জলে ভিজে নষ্ট হয়ে যেত ।

তাই সে নিয়মের পরিবর্তন আনা হয়েছিল ২০০৯ সালে এমনটা বলা হয়েছিল যে এবার থেকে গাড়ির কাগজপত্র সাথে না রাখলেও চলবে কিন্তু এবার তার থেকেও করার নিয়ম নিয়ে এলো কেন্দ্রীয় সরকার। এই মোটর ভেহিকল রুলস-এ ২০১৯ সালে সংশোধনী প্রস্তাব আনা হয়। তার পর ৯ আগস্ট সংশোধনী সর্বসমক্ষেও আনা হয়। নতুন সংশোধন অনুযায়ী, এ বার গাড়ি চালানোর সময় আর নিজের লাইসেন্স ডকুমেন্ট সঙ্গে রাখতে হবে না।

সফট কপিতেই কাজ চলে যাবে। কারণ আপনার যানবাহনের রক্ষণাবেক্ষণসংক্রান্ত যাবতীয় নথিপত্র থাকবে অনলাইন পোর্টালে। ডিজি লকার বা এম পরিবহ নামে নানা পোর্টালের মাধ্যেমই চালকরা তাঁদের গাড়ির কাগজপত্রের রক্ষণাবেক্ষণ করতে পারবেন। পাশাপাশি চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত বা বাতিল করা হলে সেটাও করতে হবে পোর্টালের মাধ্যমেই। সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এমনটা নিয়ম জারি করা হয়েছে

এবং বলা হয়েছে যদি কোন গাড়ির চালক চেকিং এ সময় পুলিশের সাথে খারাপ ব্যবহার করে তাহলে যদি মনে পাশাপাশি বাতিল হয়ে যেতে পারে তার ড্রাইভিং লাইসেন্স ।সেই সূত্র ধরেই আরও জানানো হয়েছে, চেকিংয়ের সময় কেউ যদি ট্র্যাফিক পুলিশের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন, তা হলে চালান কাটার পাশপাশি বাতিল হতে পারে চালকের লাইসেন্সও। এমনকি গাড়ি না থামালে বা ট্রাকলোডিং এলাকায় গাড়িতে চড়লে বা চালালেও সংশ্লিষ্ট চালকের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হতে পারে। পরিস্থিতি বিশেষে বাতিল হয়ে যেতে পারে তাঁর লাইসেন্স।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button