নিউজবিনোদন ও লাইফ স্টাইল

ইন্ডিয়ান আইডল জেতার জন্যে পাওয়া 25 লক্ষ টাকা দিয়ে কি করতে চলেছেন পবনদীপ? জানলে অবাক হবেন!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- হিমাচল প্রদেশের গায়ক পবনদ্বীপ ইন্ডিয়ান আইডলের এবার বিজয়ী হয়েছেন । দীর্ঘ আট মাস ধরে চলতে থাকা এই রিয়েলিটি শোতে প্রচুর ওঠানামা এসেছেন । অবশ্য দর্শকরা আস্থা হারাননি তার উপর থেকে । কারণ তার সুরেলা কন্ঠ খুব অল্পসময়ের মধ্যে জয় করে নিত দর্শকদের মন । বাংলা সংগীত জগতে যেমন একটি জনপ্রিয় মঞ্চ হচ্ছে সারেগামাপা । ঠিক তেমনই হিন্দি অর্থাৎ বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে একটি জনপ্রিয় সংগীত মঞ্চ হচ্ছে ইন্ডিয়ান আইডল ।

১১ টা সিজন পেরিয়ে ১২ নম্বর সিজনে এসে উপস্থিত হয়েছে তারা এবং নম্বর সিজনে বিজয়ী হয়েছে হিমাচল প্রদেশের পবন দ্বীপ । প্রচুর মানুষের ভালোবাসার সাথে সাথে রয়েছে তার কাছে দামী দামী উপহার । তবে ইন্ডিয়ান আইডল মঞ্চে থেকে তাকে ২৫ লক্ষ টাকা দামের একটি গাড়ি গিফট করা হয়েছে কিন্তু সেই পঁচিশ লক্ষ টাকা দিয়ে গাড়ি নয় বরং আলাদা কিছু করতে চাই । তিনি যুক্ত করলেন নিজেকে মহৎ কাজের জন্য ।

কিন্তু তিনি কি কাজ করতে চান সে ব্যাপারে নিশ্চয়ই আপনারা জানতে ইচ্ছা করছে । অবশ্য আপনাদেরকে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানাবো । তবে প্রবন্ধের সংবাদমাধ্যমকে বলেন যে আমি এই জার্নিতে অনেক কিছু শিখেছি। আমি একটা পরিবার পেয়েছি, ভবিষ্যতেও একসঙ্গে কাজ করব। আমি মিউজিক কম্পোজ করি, প্রোগ্রামিংও করতে পারি আর অবশ্যই গান গাই। ইন্ডিয়ান আইডল জেতা প্রথম মাইলফলক বলতে পারেন, আসল জার্নিটা এর পরে শুরু হবে।

মানুষ আমাকে এতো ভালোবেসেছেন, তাই এই খেতাবটা আমার কাছে বিরাট একটা দায়িত্বের। আমার মনে হয় উঠতি গায়কদের জন্য আমাদের দেশের সবচেয়ে বড় খেতাব আর মঞ্চ ইন্ডিয়ান আইডল… আমি এই ঐতিহ্য এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই”। এছাড়া সেই পুরস্কার টাকা দিয়ে সে তার গ্রামে একটি সংগীতের স্কুল খুলতে চায় । কারণ তিনি মনে করেন যে হিমাচল প্রদেশ তার গ্রামে কোন গান শেখার সুযোগ নেই ।

তাই গ্রামের ছোট ছোট ছেলেমেয়েরা যাতে আগামী দিনে এগিয়ে আসতে পারে তার সুযোগ করে দেবেন তিনি । এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় রাজন বলেন, ‘আমি আমার গ্রামের বাচ্চাদের জন্য একটা মিউজিক স্কুল খুলতে চাই এই প্রাইজ মানিটা দিয়ে। যাতে তাঁরা সংগীত শিখে আমাদের গ্রামের মুখ উজ্জ্বল করতে পারে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button