নিউজবিনোদন ও লাইফ স্টাইলভিডিও

‘ইন্ডিয়ান আইডল’ জেতার পর বন্ধুদের থেকে কি কি উপহার পেলেন পবনদীপ রাজন? দেখলে অবাক হবেন! রইল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- সঙ্গীত জগতের সেরা মঞ্চে যেমন সারেগামাপা । ঠিক তেমনি হিন্দি বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের প্রতিভাকে আ-ত্মপ্রকাশের সেরা জায়গা হচ্ছে ইন্ডিয়ান আইডল । এতদিন ধরে এগারোটা পেরিয়ে এসেছে এবং এটি ছিল তাঁর ১৩ সিজন । এটি জনপ্রিয়তা পেয়েছিল এবার দুই প্রতিযোগী জন্য তারা হলেন বনগাঁর অর্থাৎ পশ্চিমবাংলার অরুনিতা এবং হিমাচল প্রদেশের পবন দ্বীপ এর জন্য । তাদের কন্ঠ রীতিমতো মন্ত্রমুগ্ধ করে তুলেছিল নেটদুনিয়া সকলকে ।

তার পাশাপাশি সেখানে উপস্থিত দর্শকদের প্রতিনিয়ত বেড়েই চলেছে এই রিয়েলিটি শো এর জনপ্রিয়তার । তবে যে বিষয়টি সব থেকে বেশি মন করেছিল সেটি হল পবন এর কণ্ঠস্বর । হিমাচল প্রদেশের এই যুবক অত্যন্ত সুরেলা কণ্ঠে বিজয় করেছিল দর্শকদের মন ।এবং প্রত্যেকে অপেক্ষারত ছিল যে কবে তারা বিজয়ী হিসেবে তারা তাদের প্রিয় গায়ক কে দেখতে পাবে । অবশেষে স্বপ্ন সফল হয়েছে ।কারণ ইতিমধ্যে বিজয়ীর নাম ঘোষণা হয়ে গেছে এবং আমরা প্রত্যেকে জানি এই ইন্ডিয়ান আইডেল এ বিজয়ী হয়েছে তিনি ।

কিন্তু রিলিটি শো তে বিজয়ী হবার পর তিনি যে সমস্ত পুরস্কার গুলি পেয়েছে তা অন্যান্য সকল কিছু থেকে অত্যন্ত দামী ও আলাদা ।আসুন আমরা দেখে নিয়েছি পুরস্কার গু=লি কি কি । বিজয়ী হবার পর তিনি বলেন যে ওই মুহূর্তে তিনি এত কিছু ভাবেননি। বিশেষ করে নিজের ব্যাপারে তো নয়ই। তাঁর কথায়, ‘জানতাম যেইই জিতুক ট্রফি তো জিতবে আমার কোনও না কোনও বন্ধুই। এতদিন একসঙ্গে থেকে আমরা বিরাট এক পরিবারে পরিণত হয়েছি।

আমি মনে করি আমরা যাঁরা শেষমুহূর্ত পর্যন্ত লড়লাম এই খেতাবের জন্য তাঁদের মধ্যে যে কেউই বিজয়ী হতে পারত। অর্থাৎ প্রত্যেকেই যোগ্য। তাই স্রেফ নিজের হাতে বিজয়ীর ট্রফি নিতে মনটা খুনখুঁৎ করছিল। খুব একটা খুশি হতে পারিনি।যদিও বুঝে উঠতে পারছিলাম না কী করে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেলাম।’ তবে শোয়ের শেষেও যে তাঁদের প্রত্যেকের সঙ্গে প্রত্যেকের যোগাযোগ অক্ষুণ্ন থাকবে সেকথা নিজেই জানিয়েছেন পবনদীপ। এমনকি ভবিষ্যতে তাঁরা যে একসঙ্গে কাজও করবেন বিভিন্ন প্রোজেক্ট, সেকথাও জোর গলায় জানিয়েছেন তিনি।

তার প্রিয় গ্রাহক গায়ক প্রিতমের সাথে তিনি কাজ করতে চান এবং তার প্রিয় অভিনেতা সালমান খানের কোন একটি ছবিতে প্লেব্যাক সিঙ্গিং করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি । ইন্ডিয়ান এন্ড অন্যান্য প্রতিযোগিরস প্রচন্ড দামী দামী উপহার দিয়েছে তাকে । কেউ দিয়েছে সানগ্লাস কেউ দিয়েছে টুপি কেউ দিয়েছে রাজস্থানি পোশাক কেউ দিয়েছে পিয়ানো আবার কেউ কেউ দিয়েছে গিটারের । যেগু-লির দাম প্রায় এক লাখ এর কাছাকাছি । কোন কোন জিনিসের দাম আবার ১৫ লাখ অব্দি পৌঁছে গেছে । এই সমস্ত উপহার গুলিতে অত্যন্ত খুশি । তার পাশাপাশি রিয়েলিটি তরফ থেকে পেয়েছে একটা ২৫ লক্ষ টাকা দামের গাড়ি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button