ছোটবেলায় হারিয়েছেন মা কে, ক্লাস টেনে বাবাকে! দেখুন জবা ওরফে অভিনেত্রী পল্লবী শর্মার জীবন কাহিনী!

ছোটবেলায় হারিয়েছেন মা কে, ক্লাস টেনে বাবাকে! দেখুন জবা ওরফে অভিনেত্রী পল্লবী শর্মার জীবন কাহিনী!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আচ্ছা আপনারা এটা কখনো ভেবে দেখেছেন যে বর্তমান যুগে ধারাবাহিক গু-লি কেন অত্যধিক মাত্রায় অল্প সময়ে জনপ্রিয়তা লাভ করতে পারে তার কারণ হচ্ছে যে বর্তমানে ধারাবাহিক গু-লি তে এমন কিছু গল্প দেখানো হয়ে থাকে যা সহজে আ-কৃষ্ট করে আমাদের বাড়ির মা কাকিমা দের মনকে । এমনটা দেখা যায় যে বাড়ির সমস্ত কাজ সেরে নেওয়ার পর নিরিবিলিতে শান্তিতে মা কাকিমারা টিভির সামনে বসে পর তাদের প্রিয় ধারাবাহিকটি দেখবে বলে ।

এই প্রিয় ধারাবাহিকে তালিকায় অনেক ধারাবাহিক রয়েছে । তারই মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো কে আপন কে পর । এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় জবা যে যার আসল নাম পল্লবী শর্মা । কে এই পল্লবী শর্মা? কি তার পরিচয়? জীবনের কাহিনী কেমন এব্যাপারে জানতে উৎসাহ প্রকাশ করেছেন অনেকেই । কিন্তু তেমন ভাবে কোনো তথ্য জানা যায়নি ।

বেশ কিছুদিন আগে জি বাংলায় অনুষ্ঠিত হওয়া দিদি নাম্বার ওয়ান রিয়েলিটি শোতে উপস্থিত ছিলেন পল্লবী শর্মা । এবং সেখানেই তিনি তুলে ধরেন তার জীবনের ক-ঠিন সং-গ্রাম ও ল-ড়াইয়ের কথা যা আজকের প্রতিবেদন মাধ্যমে আপনাদের জানাবো। পল্লবী শর্মা দিদি নাম্বার ওয়ানে এসে জানিয়েছেন যে তার জীবন মোটেও ম-সৃণ নয় ।

জীবনে অনেক দু-র্ঘটনা ঘ-টে গে-ছে । তিনি যখন ক্লাস টুতে পড়তেন তখন তার মায়ের ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে । তখন তার দাদা প্রায়ই চিকিৎসার জন্য ব্যাঙ্গালোর চেন্নাই যাতায়াত করতো । সেই অবস্থাতেই তিনি সময় কাটাতেন তার পিসির কাছে । আর সেখান থেকেই শুরু হয় অভিনয় জগতে আসার পথ চলা। এর পাশাপাশি তিনি জানান যে যেহেতু তার পিসি অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত ছিল । তাই পিসির সাথে অধিকাংশ সময়ই স্টুডিওতে যেতেন তিনি ।

সেই সূত্রে পরিচালকদের সাথে পরিচয় হয়ে যায়। পরবর্তী ক্ষেত্রে বিভিন্ন কাজের জন্য অফার আসতে শুরু করে তার কাছে। কিন্তু তিনি যখন মাধ্যমিক পরীক্ষা দিচ্ছিলেন তখন তার বাবা মারা যান। সেই অবস্থায় দাঁড়িয়ে মা-নসিকভাবে ভে-ঙ্গে না পড়ে তিনি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন সফলভাবে । তার পাশাপাশি বাবা-মাকে সামনে রেখেই এগিয়ে চলেছে জীবনে কঠিন থেকে কঠিনতম পথ গু-লি ।


Leave a Reply

Your email address will not be published.