নিউজ

বেকার ছেলেকে বিয়ে করে তাকেই আইপিএস অফিসার বানালেন ডিএসপি ম্যাডাম, শুভেচ্ছার ঝ’ড় সোশ্যাল মিডিয়ায়!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- এবার নিজের বেকার স্বামীকে আইপিএস অফিসার বানিয়ে দিলেন ডিএসপি এই ম্যাডাম । ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের । ঘটনাটি প্রথম দুই লাইন শুনে আপনি হয়তো মনে করছেন এই যুগে হয় এমন মেয়ে রয়েছে যারা বেকার ছেলেকে বিয়ে করতে পারে । একদমই তাই । অবশ্যই রয়েছে এই যুগে এমন মেয়ে যারা টাকা-পয়সা উপর নয় বরং মানুষের বিশ্বাস এবং ভালবাসার প্রতি বিশ্বাস করে এবং

তারা অনেক সময় বেকার যুবকদের কে বিয়ে করে ঠিক তেমনটাই করেছে রেসু কৃষ্ণ নামে এই ডিএসপি ম্যাডাম । আমরা জানি সোশ্যাল মিডিয়ায় যেকোনো সময় যে কাউকে জনপ্রিয় করে তুলতে পারে । আবার অসুবিধাও করে দিতে পারে তার জীবনে ।এমনকি তার জীবন রীতিমতো তছনছ করে দিতে পারে । এই সোশ্যাল মিডিয়া সম্প্রতি বেশ কিছুদিন আগে এই ডিএসপি ম্যাডাম তার স্বামীকে নিয়ে একটি সেলফি তোলেন ও তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করেন।

এতক্ষণ পর্যন্ত কোনো রকম কোনো অসুবিধা ছিলোনা । কিন্তু অসুবিধা তৈরি হলো যখন দেখা গেল তার স্বামীর গায়ে রয়েছে পুলিশের উর্দি । যারা তার স্বামীকে চিনতেন তারা বলেছেন যে সেই যুবক বা সেই ব্যক্তি সম্পূর্ণ বেকার এবং তার স্ত্রী একজন ডিএসপি । কিভাবে তিনি হঠাৎ করে আইপিএস অফিসার হয়ে গেলেন তা ভেবে কূলকিনারা পাচ্ছেন না । যদিও তার স্ত্রী দাবি করেছেন যে তার স্বামী আসলে একজন আইপিএস অফিসার।

এই ঘটনা ফলে সম্পূর্ণ ঘটনাটিকে ইমেইলের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীকে বর্ণনা করেন এক ব্যক্তি । প্রধানমন্ত্রীর বিহারের পুলিশের উপর ঘটনাটি তদন্ত করার নির্দেশ দেয় এবং তদন্তের রিপোর্ট এসেছে তা সত্যিই ভ-য়ঙ্কর । পেশ করা রিপোর্ট অনুযায়ী যে সমস্ত তথ্য সামনে এসেছে তার ভিত্তিতে রেশু কৃষ্ণা ও তার স্বামী গ্রে-ফতার পর্যন্ত হতে পারেন। অবশ্য এই নিয়ে রেশু কৃষ্ণকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তিনি এই সমস্ত ঘটনাকে এক লহমায় মিথ্যে বলে দেন।

তিনি বলেন এই সম্পর্কে তার কোনো আইডিয়া নেই। ভারতীয় আইন অনুযায়ী কোনো সাধারন মানুষ আর্মি বা পুলিশ অফিসারদের ইউনিফর্ম পরতে পারেন না। যদি এই নিয়ম লঙ্ঘন করা হয় এবং এতে যদি কোনো সরকারি কর্মীর মদত পাওয়া যায় তবে সরকারি কর্মীটিকে বরখাস্ত করা হবে এবং উভয়কেই তিন বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেয়া হতে পারে। এতকিছু জানার পরও কিভাবে তার স্বামীকে নিয়ে গাড়ির মধ্যে ভিক্টরি সাইন দেখিয়ে আইপিএস অফিসার ড্রেস পড়ে ছবি তুললেন তা নিয়ে থাকছে হাজার প্রশ্ন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button