নিউজভিডিও

ঘরের কোন থেকে হঠাৎ বেরিয়ে এলো বিশাল বড় বিষধর কোবরা সাপ! ফোঁস করতেই ঘটলো বিপত্তি! তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন:- এবার সরাসরি ঠাকুর ঘর থেকে পাওয়া গেলো বিষাক্ত কোবরা সাপ । সেই পৌরাণিক কাহিনী থেকে ঠাকুরের সাথে সাপের ওত-প্রোত একটা সম্পর্ক রয়েছে এ কথা আমরা জানতে পারি ও রূপকথা থেকে জানতে পারি পৌরাণিক কাব্যগ্রন্থ থেকে । কিন্তু সেই ঘটনা যদি বর্তমান যুগে দেখা যায় তাহলে কিছুটা অবাক হতেই হয় তাই না? এবার সেই ঘটনা দেখা গেল দিনে-দুপুরে ।

বসতিপূর্ণ একটি এলাকাতে ঠাকুর ঘর থেকে সিংহাসনে নীচ থেকে হঠাৎ করে বেরিয়ে এলো বি-ষাক্ত সাপ । যদিও এর সাথে ঈশ্বরে কোন সম্পর্ক রয়েছে কিনা তা এখনও পর্যন্ত স্পষ্ট কোনো ধারণা আমাদের কারো কাছে নেই । দিনে দুপুরে বা রাত্রে সাপের নাম শুনলেই গাটা কেমন জানি ছমছম করে ওঠে । কারণ সাপ মানে আতঙ্ক ।সাপ মানেই মৃ-ত্যুভয় । বনে জঙ্গলে যে সমস্ত বি-ষাক্ত সাপের দেখা পাওয়া যায় কখনো কখনো সেগুলি লোকাল এর মধ্যে দেখতে পাওয়া যায় ।

এর পাশাপাশি বি-ষাক্ত সাপ দেখা যায় বাড়ির ভেতরে । এর প্রমাণ আমরা বহু বহু ভিডিওর মাধ্যমে পেয়েছি। কিন্তু সম্প্রতি যে ভিডিওটি প্রকাশিত হয়েছে সেটি আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য যথেষ্ট। এর পাশাপাশি পৌরাণিক কাহিনী অনুসারে সাপের সাথে ঈশ্বরে এক নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে । এমনকি দেবাদিদেব মহাদেবের গলাতে সাপ বর্তমান । তার পাশাপাশি বিষ্ণু সাপের উপর সজ্জিত রয়েছে । তাই সাপের সাথে ঈশ্বরের একটা সম্পর্ক বহুযুগ ধরে রয়েছে এ কথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই ।সেই চিত্র পরিষ্কারভাবে ফুটে উঠল এবার এই ভিডিওর মাধ্যমে ।

“নাগ লোক” নামক একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে পোস্ট করা হয়েছে এই ভিডিও। সাপ ধরার গায়ে কাঁ-টা দেওয়া এই ভিডিওটি ইতিমধ্যেই ১৭ হাজার মানুষ দেখে নিয়েছেন। ভিডিওটির প্রথম দিকে দেখা গিয়েছে, একই জগন্নাথ মন্দিরের পাশের ঘরে ঢুকে গিয়েছে ভ-য়া-ন-ক সা-প।সেই সাপকে বের করে আনার জন্য ডাকা হয়েছে সাপ বিশে-ষজ্ঞকে। সব ধরনের ঘ-টনাকে কেন্দ্র করে ওই অঞ্চলের প্রচুর জনতা হাজির হয়।

প্রথমে ওই সাপ ধরতে আসা ব্যক্তি মন্দিরের পাশের ঘরে প্রবেশ করেন। প্রবেশ করেই দেখেন, এক বিশাল আ-কৃতির সা-প একেবা-রে ফ-না তুলে তার দিকে চেয়ে রয়েছে।এই বিশাল আকৃতির সা-প-টাকে ধরা কখনোই সহজ সাধ্য ছিল না। তবুও তিনি নিজের মত করে চেষ্টা করে সাপটিকে আয়ত্তে আনতে চেষ্টা করেন। এর প্রতি সাবধানতার সাথে সেই সাপটিকে তিনি উদ্ধার করতে সক্ষম হয় উৎসুক জনতার ক্যামেরাব-ন্দি করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button