নিউজবিনোদন ও লাইফ স্টাইলভিডিও

একি কান্ড! গাড়ি থেকে রাস্তায় নামতেই খুলে গেল অভিনেত্রী মৌনি রায়ের পোশাক! বেরিয়ে পড়ল বক্ষ যুগল! তুমুল ভাইরাল হলো ভিডিও।

নিজস্ব প্রতিবেদন :- অভিনয় জগতের সাথে যুক্ত থাকা অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বিভিন্ন কাজকর্ম মাঝেমধ্যেই ভাইরাল হয়। এই ভাইরাল হওয়া ঘটনা গুলির মধ্যে কিছু কিছু ভালো ঘটনা তাকে আবার কিছু কিছু অপ্রস্তুতির পরিস্থিতি থাকে । কখনো কখনো নিজের পোশাকে বিভ্রান্তিতে পড়তে হয় বিভিন্ন অভিনেতা-অভিনেত্রীদের। যদিও বেশির ভাগ ক্ষেত্রে অভিনেত্রী দের কে দেখা যায় বিভিন্ন ধরনের পোশাক বিভ্রান্তিতে পড়তে । সেকরম দেখা গেল মৌনি রায়ের সাথে ।

মৌনী রায় জন্মগ্রহণ করেন ২8 শে সেপ্টেম্বর ১৯৮৫ সালে পশ্চিমবঙ্গের কোচ বিহারের একটি রাজবংশী পরিবারে। তার পিতামহ, শেখর চন্দ্র রায় একজন সুপরিচিত জাতীয় থিয়েটার শিল্পী ছিলেন। তার মা মুক্তি থিয়েটার শিল্পী হলেও তার বাবা অনিল রায় কোচবিহার জেলা পরিষদের অফিসের সুপারিনটেনডেন্ট । কোচবিহারের বাবুরহাটে কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে ১২ তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়তেন এবং তারপর দিল্লি যান।

তিনি তার বাবা-মায়ের আস্থা নিয়ে জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়াতে গণযোগাযোগে ভর্তি হন, কিন্তু কোর্সের মাঝে তা ছেড়ে দিয়ে চলে যান এবং মুম্বাইতে গিয়ে তার ভাগ্য চলচ্চিত্রে দেখার চেষ্টা করেন । ২০১২ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত লাইফ ওকে’র দেব কি দেব মহাদেব এ সতীর ভূমিকায় অভিনয় করে খ্যাতি অর্জন করেছেন। ২০১৩ সালে ২০১৪ সালে তিনি জুনুন – অ্যায়সি নাফরাত তো ক্যায়সা ইশক এ আদিত্য রেদজির বিপরীতে অভিনয় করেন।

২০১৪ সালে, তিনি কালারস র ঝালক ডিখ লাজাতে নৃত্য প্রদর্শনীতে অংশ নেন। তিনি সম্পূর্ণ ১৪ সপ্তাহের জন্যে এতে টিকে ছিলেন ও ফাইনালিস্ত হিসেবে শেষ করেছেন।২০১৫ সালে টেলিভিশনে ফিরে আসেন একতা কাপুরের অতিপ্রাকৃত সিরিজ নাগিন এ শিবানীর ভূমিকায়ই। তবে একথা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই যে এই মৌনি রায় বড় পর্দা থেকে ছোটপর্দাতেই জনপ্রিয়তা পেয়েছে বেশি পরিমাণে ।

সম্প্রতি মালদ্বীপে গিয়ে বিভিন্ন ধরনের ফটোশুটে ব্যস্ত হয়ে পড়েছিলেন অভিনেত্রী । কিন্তু এবার তার সাথে একই ঘটনা ঘটল তার জন্য প্রস্তুত ছিল না তিনি নিজে। সোমবার টি-সিরিজ সংস্থার দফতরের বাইরে পাপারাৎজিদের ক্যামেরাব-ন্দী হন মৌনি। তাঁর পরনে ছিল সাদার উপর সবুজ-হলুদ প্রিন্টেড ব্যাকলেস ড্রেস। এদিন ফ্রন্ট ওপেন ড্রেস পরলেও আর পাঁচজন সাধারণ মেয়ের মতোই মৌনির অস্বস্তি হচ্ছিল।

ফলে ক্যামেরায় পোজ দিতে গিয়ে পোশাকের উর্ধ্বাংশ বারবার টেনে ঠিক করছিলেন মৌনি। টি-সিরিজ সংস্থার দফতরের বাইরে মৌনির গাড়ি পার্কিং ছিল না। ফলে পরিস্থিতি তাঁর কাছে ক্রমশ অস্বস্তিকর হয়ে উঠতে থাকে। তিনি আচমকাই পাপারাৎজিদের এড়িয়ে পোশাক ধরে দৌড়াতে শুরু করেন।

নাছোড়বান্দা পাপারাৎজিরাও তাঁর পিছু নেন। মৌনি গাড়িতে উঠে দরজা বন্ধ করার আগের মুহূর্তে তাঁর স্ত-নের উ-ন্মুক্ত কিছু অংশ পাপারাৎজিদের ক্যামেরায় ধরা পড়ে যায়। সম্ভবত বারবার পোশাকটি ধরে টানার ফলে মৌনির কাঁধের অংশ থেকে পোশাকটি ঢিলা হয়ে গিয়ে এই ঘটনা ঘটে। ক্রমশ ভাইরাল হচ্ছে সেই ভিডিও নেট দুনিয়াতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button